মোবাইলে ভালো ছবি তুলবেন যেভাবে

0

বর্তমানে বাংলাদেশে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১০ কোটি ৬০ লক্ষের অধিক। এখন এই স্মার্টফোনটি মানুষের নিত্যদিনের সঙ্গী হয়ে পড়েছে।  অনেকে এই স্মার্ট ফোনকে কাজে লাগিয়ে অনেকে সুন্দর সুন্দর ছবি তুলছেন, আর এই ছবিগুলো প্রফেশনাল ফটোগ্রাফার দের ও হার মানায়। এ বিষয়ে কে মাথায় রেখে আজকের আর্টিকেলে আমরা সুন্দর সুন্দর ফটোগ্রাফির টিপস এন্ড ট্রিকস নিয়ে হাজির হয়েছি, যা আপনার ফটোগ্রাফিতে যুক্ত হবে নতুন মাত্রা এবং আপনিও হয়ে উঠবেন অ্যান্ড্রয়েড ফটোগ্রাফিতে দক্ষ। তাহলে চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক সেই আসাধারন টিপস গুলো।

মোবাইলে ভালো ছবি তোলার অসাধারন কিছু টিপসঃ

১. অটো মুড ও সেটিং এর ডিফল্ট অপশন সম্পর্কে জানুনঃ

অটো-মোডে ভালো ছবি উঠলেও তা সব সময় সুবিধার হয় না, বিশেষ করে ঘরের ভিতরে এবং মেঘাচ্ছন্ন দিনে অটো মোড দিয়ে ভালো ছবি তোলা সম্ভব হয় না, শুধু আপনার স্মার্ট ফোন দিয়ে নয় মার্কেটের সর্বোচ্চ ক্যামেরাটি দিয়েও এমন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়, তাহলে এই সমস্যার সমাধানের উপায় কি? এমন সমস্যার-সম্মুখীন হলে আপনাকে সবার প্রথমেই অটো-মোড থেকে ম্যানুয়াল মোডে চলে যেতে হবে। সেখানেই আপনি ইচ্ছামত ব্রাইটনেস অথবা ডার্কনেস বা আপনার যেটা বেশি মনে হচ্ছে তা আপনি আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী বাড়িয়ে অথবা কমিয়ে নিতে পারবেন। যেমন আপনি যদি মনে করেন এখন হোয়াইট-ব্যালেন্স টা হয়তো অফ করা আছে তাহলে আপনি সহজেই তা অন করে নিতে পারবেন এবং আপনার ছবির কোয়ালিটি আরো সুন্দর করতে পারবেন। এছাড়াও ম্যানুয়াল অপশনে আপনি খুব সহজেই আই এস ও এবং সাটারস্পিড চেঞ্জ করতে পারবেন। আপনি ঠিক করতে পারবেন আপনার ছবিতে কি পরিমাণ মোশন ব্লার থাকবে কি পরিমান গ্ৰেন থাকবে।

২. হাত স্থির রাখাঃ সুন্দর ও আকর্ষনীয় ফটোগ্রাফির প্রধান উপায় হল ক্যামেরা স্থির রাখা অবস্থায় ক্যাপচার করা। এর জন্য ফটো তোলার সময় হাত একদমই হাত নাড়ানো যাবে না। সবচেয়ে ভালো হয় আপনি যদি কোন ফোন ট্রাইপড ব্যবহার করেন, কেননা ট্রাইপড গুলোতে ফোন লাগানো অবস্থায় আপনার ফোন সর্বোচ্চ স্থির থাকে যে কারনে ফটো-গ্রাফির সময় ক্যামেরাও স্থির থাকে এবং সুন্দর ছবিও ধারণ করা যায়।

৩. অনেকগুলো শট নিনঃ আপনি যখন কোন কিছুর ছবি তুলবেন তখন একাধিক শট নেওয়া চেষ্টা করবেন, এতে আপনি পরবর্তী সময়ে অনেক গুলো ছবি থেকে আপনার পছন্দের ছবি সহজেই সিলেক্ট করতে পারবেন। তাছাড়াও একাধিক শট নিলে আপনার ফোনটি যদি অটো-মোডে দেওয়া থাকে তাহলে প্রতিদিন শটই কিছু নতুনত্ব পরিলক্ষিত করতে পারবেন আর যা পরবর্তী সময়ে আপনার পছন্দের ছবিটি নির্বাচন করতে সাহায্য করবে। তাই যখনই আপনি কোন কিছু ছবি তুলবেন তখনই একাধিক শট নেওয়ার চেষ্টা করবেন।

৪. জুম করবেন নাঃ যেসব ফোনে এসব জুমিং অপশন নেই সে সব ফোনে আমরা অটো-মেটিক্যালি জুম না করার জন্য উপদেশ দিয়ে থাকি। কেননা এতে করে আপনার ছবির কোয়ালিটি ও অন্যান্য গুনাগুন নষ্ট হয়। তাই সাধারণ ফোনের জন্য অটো-মেটিক্যালি জুম না করাই ভালো । আর যদি আপনার ফোনে জুম লেন্স হয় তাহলে ১-এক্স অথবা ২-এক্স রেঞ্জের মধ্যেই অটোমেটিক্যালি জুমিং টা রাখা উচিত।

৫. ফোকাসঃ ছবি তোলার সময় ফোকাস হচ্ছে, ধরুন আপনি আপনার বন্ধুর ছবি তুলছেন যেখানে আপনার বন্ধুর দশ ফিট পেছনেএকটা গাছ আছে; এখন আপনি ম্যানুয়ালি ফোকাসের মাধ্যমে ছবি তোলার সময় যদি আপনার বন্ধুকে ফোকাস করেন তবে বন্ধুর পেছনের সেই গাছটি কিছুটা ঝাপসা আসবে যাকে (ব্লার) বলা হয়। আর যদি আপনি গাছটি সিলেক্ট করেন তবে আপনার বন্ধুটি কিছুটা ঝাপসা আসবে। তাহলে বুঝতেই পারছেন ফোকাসের মাধ্যমে আপনি চমৎকার ছবি তুলতে পারবেন।

৬. ফ্লাশের ব্যবহার খুব কম করবেনঃ ফ্লাশের পরিবর্তে প্রাকৃতিক আলো ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন, ফটোগ্রাফির সম্পূর্ণ ব্যপারটিই আলোর খেলা। তাই আপনার চিহ্নিত বস্তুটি দিকে পর্যাপ্ত পরিমান আলো আছে কিনা তা খেয়াল করতে হবে। প্রকৃতপক্ষে ফ্লাশ খুব বেশি উপকারী নয় বা কাজে আসে না, আর যদি আপনি না জানেন যে আসলেই আপনি কিসের ছবি তুলতে চাচ্ছেন বা কি ধরনের ছবি তুলতে যাচ্ছেন তবে সে সব ক্ষেত্রে আমি মনে করি ফ্লাশ ব্যবহার না করাটাই বুদ্ধিমানের কাজ।

৭. ছবি এডিটিং করাঃ

আমরা সাধারণত সব সময় ভালো ছবি তুলতে পারি না, ভালো ছবি তুললে ও পর্যাপ্ত পরিমাণে ডিটেইল ছবির মধ্যে ফুটে ওঠে না। তাই আরো আকর্ষনীয় করার জন্য আমরা ছবিকে এডিট করতে পারি। ফটো এডিটর এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আপনার তোলা ছবির ব্রাইটনেস, হোয়াইট নেস, ডার্কনেস, ছবির ব্লার ইত্যাদি নতুন রূপে আপনার ইচ্ছামত ঠিক করে নিতে পারবেন। তাই প্রত্যেকটা মোবাইলে ফটো গ্রাফার এর একটি ভালো ফটো এডিটর সফটওয়্যার ব্যবহার করা উচিত।

আশা করছি এই কয়টি টিপস আপনাদের ফটোগ্রাফিতে আরো সুন্দর ও আকর্ষনীয় ছবি তুলতে সহায়তা করবে এবং আরো সুন্দর-সুন্দর ছবি উপহার দেয়ার জন্য উৎসাহিত করবে। পোষ্টটি ভালোলাগলে শেয়ার করবেন বন্ধুদের মাঝে এবং সুন্দর সুন্দর আর্টিকেল পড়তে নিয়মিত ভিজিট করুন আমাদের সাইট গ্রামীন বাংলা।

 

Share:
Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *